সঠিক আহার – শিশুর সুস্থ আন্ত্রিক ব্যবস্থা তৈরির প্রস্তুতি

সঠিক আহার – শিশুর সুস্থ আন্ত্রিক ব্যবস্থা তৈরির প্রস্তুতি

 

আমরা যতদিন বেঁচে থাকি তার পুরো সময়টা জুড়ে আমাদের ভালো থাকা এবং শরীরস্বাস্থ্যের অনেকটাই নির্ভর করে আমাদের পেটের ভিতরকার জীবাণুদের উপর। আমাদের অন্ত্র এবং মলাশয়ের ভিতরে থাকা ৩০০ থেকে ৫০০ বিভিন্ন ধরনের ব্যাকটেরিয়া ও জীবাণুর যে বিপুল সমাবেশ, তাকেই বিজ্ঞানের ভাষায় বলা হয় গাট ফ্লোরা বা আন্ত্রিক জীবজগৎ।

এই মুহূর্তে আপনার পেটের ভিতরে লক্ষ লক্ষ খুদে খুদে জীব কিলবিল করে ঘুরে বেড়াচ্ছে জানলে আপনার বিশেষ ভালো নাও লাগতে পারে। ঘাবড়ে যাওয়ার আগে জানাই, আপনার স্বতন্ত্র শারীরিক গড়নটি, অর্থাৎ যা আপনাকে আর সমস্ত মানুষের থেকে আলাদা করে চিহ্নিত করে, তার গড়ে ওঠার পিছনে কিন্তু এই খুদে খুদে জীবাণুগুলুর ভূমিকা অপরিসীম। প্রথমত, নানা ক্ষতিকর ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া এবং রোগজীবাণুর সঙ্গে লড়াইয়ে আপনার দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থার একদম প্রথম সুরক্ষা কবচ কিন্তু এই আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়াই। তাছাড়া, আপনার আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়া একান্তই আপনার নিজস্ব। আঙুলের ছাপের মতোই, কোনও দু’জন মানুষের দেহে একই আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়া থাকে না।

আপনার শিশু ও আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়া

আপনার আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়া গঠনতন্ত্রের একটি সহজ সরল ক্রিয়ার উপরেই নির্ভর করে আপনার শিশুর আন্ত্রিক স্বাস্থ্য। এক সময় ভাবা হত যে শিশু ভূমিষ্ঠ হওয়ার সময়ে তার অন্ত্রে কোনও আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ার উপস্থিতি থাকে না। কিন্তু পরবর্তী কালে এই ধারণা ভুল প্রমাণিত হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করে, যোনি জন্মের সময়ে শিশু যখন গর্ভ থেকে যোনির দিকে নামছে, তখনই মায়ের আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়াসমূহ শিশুর শরীরে ঢুকতে শুরু করে। সাম্প্রতিক গবেষণায় এমনটাই ইঙ্গিত পাওয়া গেছে যে গর্ভে থাকাকালীনই শিশুদের আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ার একটা ক্ষুদ্র অংশ রূপ পেতে শুরু করে। ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর শিশুর আশপাশের পরিবেশের উপর ভিত্তি করে আরও প্রসারিত হতে থাকে এই ব্যাকটেরিয়ার দল। শিশুর শরীরে আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়া পৌঁছনোর আরেকটি প্রধান উপায় হল স্তন্যপান। শিশুর সারা জীবন ধরে এই ব্যাকটেরিয়ার প্রসার চলতে থাকে, এবং তা তার স্বাস্থ্যের উপরেও উল্লেখযোগ্য প্রভাব ফেলে।

আগেই বলা হয়েছে, সুস্থ প্রতিরোধ ব্যবস্থার গোড়ার কথা হল সুস্থ আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়া। আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ায় বৈচিত্র্য থাকলে শিশুদেহের নানা সংক্রমণ, প্যাথোজেন তথা রোগবালাইয়ের সঙ্গে লড়ার ক্ষমতাও বৃদ্ধি পাবে। কাজেই, শিশুর আন্ত্রিক ব্যবস্থা যাতে সুস্থ ও সবল হয় তা নিশ্চিত করাটা খুবই জরুরি।

সুস্থ-সবল আন্ত্রিক ব্যবস্থা কী ভাবে গড়ে ওঠে?

আন্ত্রিক ব্যবস্থা সুস্থ-সবল হবে কিনা তা নির্ভর করে অনেকগুলি শারীরিক এবং পরিবেশগত বিষয়ের উপর।

  • জন্মের ধরণ – প্রচলিত ধারণা হল সিজারিয়ান-সেকশন করে অর্থাৎ পেট কেটে বাচ্চার জন্ম হলে তার শরীরে আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ার বৈচিত্র্য কম থাকে; যেহেতু এক্ষেত্রে তারা মায়ের পরিপাকতন্ত্র ও যোনির ভিতর দিয়ে যাওয়া জন্মপথটিতে ঢুকছে না, ফলে মায়ের শরীরের ব্যাকটেরিয়াও তার শরীরে আসার সুযোগ পাচ্ছে না। কাজেই স্বাভাবিক বা যোনিপথের মাধ্যমে শিশুজন্মই শ্রেয়তর। তবে এই পুরো বিষয়টার সিদ্ধান্তই চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে নানা দিক ভেবে নেওয়া উচিত।
  • খাদ্যাভ্যাস – অন্যান্য স্বাস্থ্য-সংক্রান্ত বিষয়ের মতই, আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ার সুস্থতা বজায় রাখতেও আপনার খ্যাদ্যাভ্যাস একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। অতিরিক্ত প্রক্রিয়াজাত খাবার বা জাঙ্ক ফুড খেলে আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়া তন্ত্রে গোলযোগ দেখা দেয়। এই কারণেই বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রোজের আহার হোক প্রচুর প্রোটিন এবং শাকসবজি সম্বলিত সুষম আহার। আবার, আপনার শরীরে সংক্রমণ এবং বহিরাগত ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ এলে তা ঠেকানোর জন্য আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ার যে ক্ষমতা রয়েছে, অতিরিক্ত চিনি খেলে তা হ্রাস পেতে পারে।
  • জীবনযাত্রা – আন্ত্রিক ব্যকটেরিয়ার সুস্থতার ক্ষেত্রে যে বিষয়টির কথা আমরা প্রায়ই ভুলে যাই তা হল আমাদের জীবনযাত্রার ধরণধারণ। মানসিক চাপ স্বাস্থ্যের পক্ষে খারাপ, কথাটা নিশ্চয় শুনেছেন। তার কারণটা হল, অতিরিক্ত মদ্যপান, তামাক সেবন এবং উচ্চ মাত্রায় মানসিক চাপ আসলে আমাদের আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ার মারাত্মক ক্ষতি করে। সেই ক্ষতির কারণে আবার আমাদের প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হয়ে পড়ে, এবং সামগ্রিক ভাবে আমাদের শরীরের সংক্রমণ ঠেকানোর এবং সুস্থ থাকার ক্ষমতাটাই হ্রাস পেতে থাকে।
  • অতিরিক্ত অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়া – অধিকাংশ চিকিৎসকই জানেন যে, যে সমস্ত শিশু এবং সদ্যোজাতদের নিয়মিত অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ানোর প্রয়োজন হয়, তাদের আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ার বিকাশ কম হয়, এবং সারা জীবন ধরে নানা স্বাস্থ্য এবং প্রতিরোধশক্তি সংক্রান্ত সমস্যায় ভুগতে হয় তাদের।

আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়া তন্ত্রের সুস্থতা নির্ভর করে তার সবক’টি উপাদান, যেমন নানা ধরণের জীবাণু এবং ছত্রাকগুলির সুষম বণ্টনের উপর। কোনও একটি ধরণের জীবাণুর পরিমাণ বেশি হলে তা ভারসাম্যহীনতার সৃষ্টি করে, এবং তা থেকে একাধিক অবাঞ্ছিত রোগবালাই ও অসুস্থতা দেখা দিতে পারে। আর যেহেতু আপনার শিশুর আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ার অনেকটাই আসে আপনার শরীর থেকেই, তাই নিজের আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ার স্বাস্থ্য সম্পর্কে খেয়াল রাখাটাও কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ।

গর্ভবতী অবস্থায় আন্ত্রিক ব্যবস্থাকে সুস্থ রাখার জন্য উপযুক্ত আহার

১) গর্ভবতী হওয়ার আগে থেকেই এ বিষয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করুন। গর্ভ ধারণের পরিকল্পনা থাকলে এখন থেকেই জীবনযাত্রা এবং খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন আনা শুরু করুন, যাতে যখন আপনার গর্ভে শিশু বেড়ে উঠতে শুরু করবে আপনার আন্ত্রিক ব্যবস্থা যেন সুস্থ অবস্থায় থাকে। রোজকার খাদ্যাভ্যাসে ভিটামিন এবং প্রোটিনের পরিমাণ বাড়ান, এবং মদ্যপান এবং এ ধরণের ক্ষতিকর অভ্যাস বর্জন করুন।

২) রোজকার খাবারে প্রিবায়োটিক উপাদান যোগ করুন। প্রোবায়োটিকের খুব কাছাকাছি গোষ্ঠীর এই পৌষ্টিক উপাদানগুলি আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়ার বিকাশ ও বংশবৃদ্ধিতে সাহায্য করে। রোজের খাবারে প্রিবায়োটিক যোগ করলে শরীরে সুস্থ আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়া তন্ত্র গড়ে ওঠার কাজটা গতি পাবে অনেকটাই। প্রিবায়োটিকে ভরপুর কিছু খাদ্যের উদারহণ হল :

  • পেঁয়াজ
  • রসুন
  • গম (এবং অঙ্কুরিত গম)
  • আপেল ও কলা
  • প্রিবায়োটিক সাপ্লিমেন্ট

৩) প্রোবায়োটিকদেরও কিন্তু ভুলে গেলে চলবে না! এগুলি প্রিবায়োটিকের থেকে আলাদা; শরীরে বাইরে থেকে সুস্থ আন্ত্রিক ব্যাকটেরিয়া জোগান দেয় এগুলি। বহুল প্রচলিত কিছু প্রোবায়োটিকের উদাহরণ হল :

  • টক দই বা ইয়োগার্ট
  • ডার্ক চকোলেট
  • আচার
  • বাজারচলতি প্রোবায়োটিক সাপ্লিমেন্ট

রোজকার খাদ্যাভ্যাসে এইগুলির অন্তর্ভুক্তি, আর তার পাশাপাশি গর্ভাবস্থায় সামগ্রিক ভাবে স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসের যে নিয়মকানুনগুলি রয়েছে, সেগুলি মেনে চললেই নিজের আন্ত্রিক ব্যবস্থাকে সুস্থ রাখতে পারবেন, আর সেইসঙ্গেই সক্ষম হবেন নিজের শিশুকে একটি সুস্থ আন্ত্রিক ব্যবস্থা উপহার দিতে।

সুস্থ থাকুন, মা হওয়ার আনন্দ উপভোগ করুন!

তথ্যসূত্র :

https://foodbabe.com/importance-gut-bacteria-pregnancy-destroy-modern-practices/

https://www.newscientist.com/article/dn25603-babys-first-gut-bacteria-may-come-from-mums-mouth/

https://www.newscientist.com/article/mg21428603-800-babies-are-born-dirty-with-a-gutful-of-bacteria

https://www.tummycalm.com/building-a-healthy-gut-for-baby.html

https://www.nutritionnews.abbott/healthy-moms-babies/3-ways-to-build-your-baby-s-gut-health.html

https://www.hyperbiotics.com/blogs/recent-articles/optimize-your-breast-milk-by-focusing-on-your-gut

https://www.parents.com/health/hygiene/5-ways-to-boost-your-kids-gut-health/

https://www.starthealthy.nestle-me.com/en/ways-build-healthy-gut-your-baby#

https://paleoleap.com/importance-gut-flora-immune-system/

https://www.webmd.com/digestive-disorders/qa/how-is-gut-bacteria-linked-to-diseases

https://www.lifetime-weightloss.com/blog/2015/7/23/5-factors-that-influence-gut-health.html

https://www.sciencealert.com/scientists-find-69-different-factors-that-influence-the-bugs-in-your-gut

https://www.mindbodygreen.com/0-26360/4-things-that-are-wrecking-your-gut-health.html

https://www.thebump.com/a/10-pregnancy-foods-to-eat-for-baby

https://www.globalhealingcenter.com/natural-health/probiotic-foods/