আপনার শিশুর ডায়রিয়া প্রতিরোধ/চিকিৎসা পদ্ধতি

আপনার শিশুর ডায়রিয়া প্রতিরোধ/চিকিৎসা পদ্ধতি

 

এই নিবন্ধটি বর্তমানে IAP বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পর্যালোচনা অধীনে; এখনো সম্পাদিত এবং অনুমোদিত এবং প্রযুক্তিগত এবং ভাষা ত্রুটি থাকতে পারে। দয়া করে এখানে ক্লিক করে সংশোধন এবং অনুমোদিত ইংরেজি সংস্করণ পড়ুন।

শিশুদের মল সাধারণত নরম এবং শিথিল হয়, অন্তত প্রথম কয়েক মাস পর্যন্ত। তারপরও, যদি আপনি বাচ্চার ডাইপারে অতিরিক্ত জলের মত পায়খানা দেখতে পান, তবে এটি হতে পারে যে আপনার বাচ্চা ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে।

যদিও উন্নত দেশগুলোতে ডায়রিয়ায় শিশুমৃত্যুর হার খুবই কম, তবে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে এটি অশ্রুত নয় যেখানে যথাযথ চিকিত্সার ব্যাপারে সচেতনতার অভাবে প্রায়ই গুরুতর অনিয়ন্ত্রিত ডায়রিয়ায় শিশু মৃত্যু ঘটে থাকে।

ডায়রিয়ার তীব্রতা কত ঘন ঘন পায়খানা হচ্ছে এবং সেটি কতটা জলের ন্যায় তার দ্বারা বিচার করা যেতে পারে। যেসব শিশুরা কেবলমাত্র শক্ত খাবার শুরু করেছে এবং তাদের পরিপাকতন্ত্র বিভিন্ন ধরণের খাবারে পুরোপুরি অভ্যস্ত হয়ে ওঠেনি, তাদের ক্ষেত্রে ডায়রিয়া এতটা অস্বাভাবিক নয়। উপরন্তু, প্রত্যেকটি শিশু আলাদা – কেউ কেউ অন্যদের তুলনায় ল্যাকটোজ অসহিষ্ণু হয়। প্রায়ই দেখা যায় যে যখন তাদের কোন নতুন খাবার দেওয়া হয়, তখন শিশুদের ডায়রিয়ার মত হয়।

ডায়রিয়ার কারণসমূহ

আপনার শিশুর ডায়রিয়া কেন হতে পারে তার বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে। এর মধ্যে কিছু সাধারণ কারণ হলঃ

ভাইরাস ঘটিত সংক্রমণ

ভাইরাস ঘটিত সংক্রমণ যেমন রোটাভাইরাস হল শিশুদের ডায়রিয়া হওয়ার অন্যতম কারণ। যেহেতু  শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা তখনও পর্যন্ত সুগঠিত নয়, তাই তারা তাদের প্রাপ্তবয়স্কদের  তুলনায় এইসব সংক্রমনের ক্ষেত্রে বেশী সংবেদনশীল হয়।

পরজীবী

পরজীবীর সংস্পর্শে প্রায়ই ডায়রিয়া হতে পারে কারণ তখন শরীর সব ধরনের আক্রমণ প্রতিরোধ এবং বিষাক্ত পদার্থগুলো বের করে দেয়ার চেষ্টা করে। এর ফলে সাধারণত ডায়রিয়া এবং জ্বর হয়। যদি আপনার শিশুটি অন্য শিশুদের সাথে মিশতে পারে এমন জায়গা যেমন ডে-কেয়ার সেন্টারে যায় যেখান থেকে সম্ভবতঃ সংস্পর্শজনিত ডায়রিয়া হতে পারে কারণ সাধারণত শিশুদের মধ্যে পরিচ্ছন্নতা ও স্বাস্থ্যজ্ঞানের  অভাব থাকে।

খাবারের এলার্জী
শিশুদের মধ্যে ল্যাকটোজ অসহনশীলতা  খুবই স্বাভাবিক এবং এর কারণে প্রায়ই মৃদু ডায়রিয়া হতে পারে। এছাড়া বুকের দুধ খাওয়া বাচ্চার ডায়রিয়া হতে পারে যদি মা স্তন্যপান করানোর সময়ে শিশুটির যেসব খাদ্যে এলার্জি আছে তা গ্রহন করেন। দুগ্ধ প্রোটিনের প্রতি এলার্জি শিশুদের মধ্যে ডায়রিয়ার সবচেয়ে সাধারণ কারণ।

অ্যান্টিবায়োটিক
অ্যান্টিবায়োটিক গ্রহণকারী প্রতি ১০ জন শিশুর মধ্যে অন্তত একজন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়। যেহেতু, অ্যান্টিবায়োটিক ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়ার পাশাপাশি অন্ত্রের সুস্থ ব্যাকটেরিয়াও ধ্বংস করে, তাই শিশুরা পেটে অস্বস্তি বোধ করতে পারে।

আমি কিভাবে আমার শিশুটির যত্ন নিতে পারি?

ডায়রিয়ায় শিশুরা প্রায়ই মৃদু জ্বালাতনের চেয়ে একটু বেশি বিরক্ত করে। এই ফ্যাক্টরটি কয়েক গুন বেড়ে যায় যখনএকটি শিশু ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়।

ডায়রিয়া অধিকাংশ ক্ষেত্রে নিজে থেকেই ঠিক হয়ে যায় অর্থাৎ কোনও বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ ছাড়াই এটি কিছু সময়ের পরে সেরে যাবে। চিকিৎসা ব্যতীত অন্ত্রের ডায়রিয়া সাধারণত এক বা দুই সপ্তাহেই সেরে যায়। বলা হয়ে থাকে, এমনটি হলে কিছু উপায় আছে যা আপনি শিশুর এবং নিজের জন্য সহজ করে নিতে পারেন।

তরলজাতীয় খাবার আপনার বন্ধু

ডায়রিয়া হলে শরীর থেকে জল হ্রাস পায়। এই জল হ্রাসের ফলে ডায়রিয়া প্রায়ই জীবন-হুমকিতে ফেলে। আপনি নিশ্চিত করুন যে আপনার শিশুটিকে আপনি যথেষ্ট পরিমাণ তরল খাবার দিচ্ছেন। সাধারণত জলই যথেষ্ট – তবে আপনি সবজির ঝোল , স্যুপ ও খাওয়াতে পারেন। যদি আপনার শিশুটি নরম খাবার খেতে না চায় তবে জলের পরিবর্তে দুধ দেবেন যেহেতু দুধ কিছু বাড়তি পুষ্টি সরবরাহ করে।

খাওয়ানো বন্ধ করবেন না

ডায়রিয়া হলেও আপনার শিশুটিকে ঠিকমত খাওয়ানো গুরুত্বপূর্ণ। যদি তাদের মৃদু ডায়রিয়া হয় (পাতলা মল), তবে তাদের দুধ ও দুগ্ধজাত খাবার দিতে থাকুন যদি না তাতে অ্যালার্জি হয়। যদি আপনার শিশুটি ঘন ঘন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়, তবে নিশ্চিত করুন যে আপনি তাকে স্টার্চ সমৃদ্ধ খাদ্য যেমন শস্য, শুকনো শস্যদানা,পাস্তা এবং চটকানো আলু খাওয়াচ্ছেন।

এইগুলি এড়িয়ে চলুন

আপনার শিশুকে কার্বনেটেড সোডা বা জুস  দিবেন না, এগুলো খুব ঘন এবং এতে প্রচুর চিনি থাকে। এছাড়াও, স্বচ্ছ তরল  দিবেন না – বরং এর পরিবর্তে আপনার শিশুকে দুধ দিন কারণ স্বচ্ছ তরলে কোন ক্যালোরি থাকে না, অন্যদিকে দুধ বাড়তি পুষ্টি প্রদান করতে পারে। শিশুর শরীরে তরলের স্তর বজায় রাখার জন্য তরল খাবার খাওয়ানো বহাল রাখা অত্যাবশ্যক।

কিভাবে ডায়রিয়া প্রতিরোধ করতে পারি?

আপনার যদি একাধিক শিশু থাকে তবে ডায়রিয়াটি উদ্বেগের একটি কারণ হতে পারে কারণ এটি অত্যন্ত সংক্রামক। অতএব, এর প্রতিরোধ করার জন্য শিশুদের চারপাশে উচ্চ মানের স্বাস্থ্যবিধি ও পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করতে হবে। আপনার শিশুটি কি তার মুখের মধ্যে নিচ্ছে তার উপর নজর রাখুন।  উপরন্তু, আপনি নিশ্চিত করুন আপনার হাত সবসময় পরিষ্কার এবং আপনি নিজেও ভাল স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করছেন।

আপনার সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা সত্ত্বেও কোন কোন সময় আপনার শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়তে পারে। চিন্তা করবেন না, শিশুদের ডায়রিয়া হওয়া অস্বাভাবিক কিছু নয়। স্বাস্থ্যকর পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখার মাধ্যমে এটি বারবার না ঘটা নিশ্চিত করে।

আপনি আপনার শিশুর অস্বস্তি কমাতে কিছু অন্যান্য পদ্ধতিও অনুসরণ করতে পারেন। বারবার পায়খানার ফলে বাচ্চার পশ্চাৎদেশের চামড়ায় জ্বালা করতে পারে। প্রত্যেকবার পায়খানার পরে এটি পরিষ্কার করুন এবং জায়গাটি আদ্র রাখতে পেট্রোলিয়াম জেলি প্রয়োগ করুন।

ডাক্তারকে কি কল করা উচিত?

ডায়রিয়া কখনও কখনও অপ্রত্যাশিতভাবে খারাপের দিকে যেতে পারে। এমতবস্থায়, ডাক্তারের সাহায্য নেওয়া সবসময় ভাল। আপনি নিম্নলিখিত লক্ষণ এবং উপসর্গগুলির কোনও লক্ষ্য করলে অবিলম্বে ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করুনঃ

  • জলবিয়োজনের লক্ষণ যেমন দীর্ঘ সময় ধরে (১২ ঘন্টা) প্রস্রাব না হয়, চোখ বসে যাওয়া, যদি কাঁদে তবে কান্নায় অশ্রু কম বা অনুপস্থিতি, অলসতা।
  • মলে রক্ত
  • বারবার বমি
  • মলে মিউকাস/আম বা পুঁজ
  • অত্যন্ত জ্বর (১০২ºC উপরে)
  • যদি মৃদু ডায়রিয়া দুই সপ্তাহের বেশি স্থায়ী হয়

উপসংহার

এটা মনে রাখা জরুরী যে পাতলা পায়খানা বাচ্চাদের মধ্যে খুবই সাধারণ। আপনার শিশুটি কয়েকবার পাতলা পায়খানা করলেই ঘাবড়াবেন না। এটি হতে পারে খাদ্যের পরিবর্তনের সাথে শিশুর শরীরের খাপ খাইয়ে নেয়ার কারণে। বারবার পাতলা পায়খানা (কয়েক ঘন্টার মধ্যে ৩-৪ বার) হতে থাকলে তখন উপরের তালিকাভুক্ত ব্যবস্থাগুলির শুরু করা উচিত।

সাধারণত, ডায়রিয়া কোন বড় আশংকাজনক অবস্থা নয় – তবে যদি আপনার শিশুর তরলের মাত্রা একটি সীমার নিচে নেমে যায়, তাহলে ডায়রিয়া দ্রুত জীবনের জন্য হুমকিজনক অবস্থায় পরিণত হতে পারে। অতএব, ডায়রিয়া হলে আপনার বাচ্চার সঠিক যত্ন নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ। যদি খারাপ কিছু দেখেন, তাহলে ডাক্তার ডাকতে কুণ্ঠাবোধ করবেন না। খারাপ কিছু ঘটার আগেই সর্বদা নিরাপদ থাকা ভাল।