ফর্মুলা খাদ্য ব্যবহার: কবে থেকে ও কী ভাবে

ফর্মুলা খাদ্য ব্যবহার: কবে থেকে ও কী ভাবে

 

এই নিবন্ধটি বর্তমানে IAP বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পর্যালোচনা অধীনে; এখনো সম্পাদিত এবং অনুমোদিত এবং প্রযুক্তিগত এবং ভাষা ত্রুটি থাকতে পারে। দয়া করে এখানে ক্লিক করে সংশোধন এবং অনুমোদিত ইংরেজি সংস্করণ পড়ুন।

মাতৃত্ব নারীকে আমূল বদলে দেয়। বাহ্যিক চেহারা থেকে শুরু করে শরীরের ভিতরকার হরমোনঘটিত কার্যকলাপ, বদলে যায় সবই। এর মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ হল স্তন্যদুগ্ধক্ষরণ, যা গর্ভাবস্থা শুরুর মোটামুটি ১৬তম সপ্তাহে আসে। স্তন্যদান মাতৃত্বের একটি স্বাভাবিক পর্যায়। কিন্তু যে মায়েদের শরীরে কোনও কারণে পর্যাপ্ত পরিমাণ স্তন্যদুগ্ধ ক্ষরণ হয় না, তাঁদের রক্ষাকর্তা হল ফর্মুলা খাদ্য। এগুলি মূলত স্তন্যদুগ্ধের বিকল্প হিসেবে তৈরি। সাধারণতঃ গরুর দুধে তৈরি হয়, যাকে শিশুদেহের চাহিদার উপযোগী করে পরিমার্জনা করা হয়েছে। শিশুদের স্তন্যদুগ্ধ থেকে সরিয়ে অন্য ধরণের দুধের দিকে নিয়ে যাওয়ার মাঝামাঝি সময়টায় পুষ্টির পরিপূরক উৎস হিসেবে কাজ করে ফর্মুলা খাদ্য বা ফর্মুলা দুধ।

বাজারে নানা সংস্থার দুগ্ধ বিকল্প বা ফর্মুলা দুধ পাওয়া যায়, তবে খুব বুঝেশুনে সিদ্ধান্ত নেবেন।

শিশুর বাড়বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় উপাদানগুলি একত্র করে প্রস্তুত করা পুষ্টিকর শিশুর উপযোগী খাদ্যই হল ফর্মুলা খাদ্য।

আপনার খুদেটির জন্য সঠিক ফর্মুলা কী ভাবে বেছে নেবেন?

শিশুকে প্রথম বার ফর্মুলা খাওয়ানোর সময় মাঠা বা ঘোলের (whey protein) ভাগ বেশি এমন গরুর দুধ কিনুন। বাজারে দু’ধরণের গরুর দুধ পাওয়া যায়, একটায় ঘোলের ভাগ বেশি (whey protein) অন্যটিতে ছানার ভাগ (casein)। প্রথমটি হজম করা তুলনায় সহজতর, তাই শিশুর জন্য সেইটিই উপযোগী হবে।

ফর্মুলা দুধ শুরু করা কখন নিরাপদ?

শিশুর অন্তত এক মাস বয়স হওয়ার আগে ফর্মুলা দুধ বা যে কোনও বাইরের খাবার খাওয়ানো নিরাপদ নয়। শিশুর খাদ্য তথা পুষ্টির সর্বোত্তম উৎস স্তন্যদুগ্ধ। অন্য যে কোনও বিকল্প একটু একটু করে রোজকার আহারের সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। স্তন্যদান বিশেষজ্ঞদের মতে, বুকের দুধ খাওয়ানোর পাশাপাশি প্রতি সপ্তাহে একবার করে ফর্মুলা দুধ খাওয়াতে পারেন। এতে করে শিশুর খাদ্যাভ্যাস এবং আপনার শরীরে দুধের ক্ষরণ বাধাপ্রাপ্ত হবে না।

প্রসবের পর পরই ফর্মুলা দুধ শুরু করা যাবে না কেন?

ফর্মুলা দুধ পুষ্টিগুণে ভরপুর হতে পারে, কিন্তু মায়ের দুধের মত প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলার শক্তি তার নেই। সদ্যোজাতর জন্য মায়ের বুকের দুধই সর্বশ্রেষ্ঠ খাদ্য, শিশুর পুষ্টিসাধনের জন্য যা যা দরকার সবই এতে আছে। শিশুর স্বাস্থ্যগঠনের জন্য প্রথম মাসটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কাজেই প্রথম ৬ মাস পর্যন্ত বুকের দুধ খাওয়ানোর পাশাপাশি একটু একটু করে ফর্মুলা দুধ খাওয়াতে থাকাই শ্রেয়।

শিশুকে কতটা ফর্মুলা খাদ্য খাওয়ানো যথাযথ হবে?

শিশুকে দিনে ৩২ আউন্স বা ৯০০ গ্রামের কাছাকাছি ফর্মুলা দুধ/খাদ্য খাওয়ানো যেতে পারে, কিন্তু তার বেশি নয়। শক্ত খাবার খাওয়াতে শুরু করার সঙ্গে সঙ্গে ফর্মুলা খাদ্যের পরিমাণ কমিয়ে দতে হবে। আপনার খুদেটির বৃদ্ধির হার এবং তার ভিত্তিতে সে গ্রোথ চার্টের কোন বিভাগে পড়ে সেগুলি সম্যক বুঝে নিতে অবশ্যই শিশু বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন, এবং তার ভিত্তিতেই সিদ্ধান্ত নিন।

ফর্মুলা দুধে কোন কোন পৌষ্টিক উপাদান থাকা আবশ্যক?

ডিএইচএ (DHA) বা এআরএ-র (ARA) মত উপাদানগুলি অত্যাবশ্যক, এবং যে কোনও ফর্মুলা খাদ্যেই এদের থাকা জরুরি। ডিএইচএ হল ডকোস্যাহেক্সএওনিক অ্যাসিড (Docosahexaeonic Acid) এবং এআরএ হল আরাকিডোনিক অ্যাসিড (Arachidonic Acid)। এগুলি উপকারী ফ্যাট এবং পলিআনস্যাচুরেটেড অ্যাসিডের উৎস, যা মস্তিষ্কের বিকাশ এবং স্নায়ুতন্ত্রের ক্রিয়াকলাপের জন্য উপকারী। হৃদয় সুস্থ রাখতেও সাহায্য করে এগুলি। এই অ্যাসিডগুলিতে যে ফ্যাট আছে তা চরিত্রে মাছের তেলের ফ্যাটের সমান। যে নির্মাতারা তাঁদের ফর্মুলা দুধে এই দুটি উপাদান যোগ করেছেন, তাঁরা বস্তুত স্তন্যদুগ্ধের পুষ্টিগুণই যথাসম্ভব অনুকরণ করার চেষ্টা করছেন।

বাজারে আজকাল অসংখ্য ধরণের ফর্মুলা দুধ/খাদ্য পাওয়া যায়। কোনটা কিনবেন সে বিষয়ে আপনার শিশুরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে পারেন, অন্যান্য নতুন মা-বাবার সঙ্গেও কথা বলতে পারেন, তবে শেষমেশ সিদ্ধান্ত আপনাকেই নিতে হবে। নীচে কয়েক ধরণের ফর্মুলার তালিকা রইল:

  • গরুর দুধের ফর্মুলা
    সবচেয়ে বহুল প্রচলিত এই ধরণের ফর্মুলাটি। এর মধ্যে অনেকগুলিতেই লোহার পরিমাণ বেশি থাকে। চিকিৎসক অন্য রকম না বললে লোহা-সমৃদ্ধ ফর্মুলাই ব্যবহার করুন।
  • সয়াবিন দুধ ফর্মুলা
    যে শিশুদের দুধ তথা ল্যাক্টোজ হজমে সমস্যা হয়, তাদের সয়াবিন দুধেও সমস্যা হওয়ার কথা। কাজেই এসব ক্ষেত্রে লোহা-সমৃদ্ধ খাবার দেওয়াই যুক্তিযুক্ত হবে।
  • বিশেষ ফর্মুলা
    এই জাতীয় ফর্মুলা সাধারণতঃ সেই সব শিশুদের দেওয়া হয় যারা সময়ের আগে জন্মেছে বা যাদের জন্মের সময়কার ওজন ভীষণ কম ছিল।
  • হাইপোঅ্যালার্জেনিক শিশুখাদ্য
    যে শিশুরা গরু বা সয়াবিন কোনও ধরণের দুধই হজম করতে পারে না তাদের হাইপোঅ্যালার্জেনিক ফর্মুলা খাওয়ানো হয়। এটিতে প্রোটিন কাঠামোটি একদম সরল উপাদানে ভেঙে দেওয়া হয়, ফলে তা হজম করা সহজ হয়।

ফর্মুলা খাদ্যের সুবিধা কী কী?

মায়ের বুকের দুধের অবিকল বিকল্প কিছু হতে পারে না, কিন্তু সাম্প্রতিক কালে ফর্মুলা দুধের ব্যবহার খুবই জনপ্রিয় হয়েছে নানা কারণেই। এর কিছু উপকারিতায় চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক:

কর্মরতা মহিলাদের জন্য সুবিধাজনক
যে মেয়েরা প্রসবের পর কাজে ফিরতে চান তাঁরা অনেকেই ফর্মুলা দুধের উপর নির্ভর করেন। এটি খাওয়ানো সহজ, পাম্প বা হাতে করে বুকের দুধ নিষ্কাশন করা, সংরক্ষণ করা ইত্যাদি ঝঞ্ঝাটও নেই। শিশুর খেয়াল রাখা এবং কাজ দুটৈ পাশাপাশি চালানো সহজতর হয় এতে।

বুকের দুধ ক্ষরণ হয় না যাঁদের
কিছু কিছু নতুন মায়ের শরীরে নানা সমস্যায় দুধের উৎপাদন কম হয় বা হয়ই না। তাঁদের জন্য ফর্মুলা দুধ ত্রাতাস্বরূপ; কারণ বাচ্চাকে কী খাওয়ালে যথাযথ পুষ্টি হবে তা নিয়ে দুশ্চিন্তাটা থাকে না।

পুষ্টিগুণের ভাণ্ডার
এই ফর্মুলা খাদ্যগুলি তৈরিই হয় এমন ভাবে যাতে শিশুর বাড়বৃদ্ধি ও বিকাশের জন্য জরুরি সমস্ত কিছুর চাহিদা মেটানো যায়। সাধারণতঃ এগুলি লোহায় সমৃদ্ধ হয়, যা অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতা থেকে শিশুকে সুরক্ষিত রাখতে অবশ্যপ্রয়োজনীয়। এই খাদ্যগুলিতে বাইফিডোব্যাক্টেরিয়াম ল্যাক্টিস নামক একটি প্রোবায়োটিকও প্রচুর পরিমাণে থাকে, যা পৌষ্টিকতন্ত্রের কার্যকলাপে সহায়তার পাধাপাশি খাবার থেকে অ্যালার্জি এবং ডায়রিয়া প্রতিরোধ করে।

ব্যবহারের সুবিধা
মা, বাবা হোন বা আয়া, ফিডিং বোতলে করে শিশুকে খাওয়ানোটা সবার পক্ষেই তুলনামূলক ভাবে সহজ। শিশুর পরিচিত যে কেউই শিশুকে ফর্মুলা দুধ খাওয়াতে পারবেন। স্তন্যদুগ্ধে অভ্যস্ত শিশুরা সাধারণতঃ দুধ হজম করে অনেক তাড়াতাড়ি, আর তাদের খিদেও পায় ঘন ঘন, ফর্মুলা দুধে অভ্যস্ত শিশুদের থেকে অনেক বেশি বার।

বৈচিত্র
নানা রকমের, নানান বিশেষত্বের শিশুখাদ্য বাজারে সহজলভ্য। যাদের দুধ হজমে সমস্যা, তাদের জন্য সয়াবিন ফর্মুলা রয়েছে। যাদের সয়াবিন দুধে সমস্যা, তাদের জন্য রয়েছে সহজে পরিপাকযোগ্য অন্যান্য প্রোটিন-সমৃদ্ধ ফর্মুলা। শিশুরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে আপনার শিশুর জন্য সঠিক ফর্মুলাটি বেছে নিন।

বাজারে কী কী ফর্মুলা দুধ সহজলভ্য?

অজস্র ধরণের শিশুখাদ্য আজকাল পাওয়া যায়। সবচেয়ে বিখ্যাত ও প্রচলিত কয়েকটি নাম নীচে দেওয়া হল:

  • Enmafil Infant Formula
  • Gerber Good Start Gentle Formula Infant Formula
  • DSS Expert Care Neo Sure ready to Feed
  • Enfagrow Toddler Next Step Milk Drink

ফর্মুলা খাদ্য সহজলভ্য, সুবিধাজনক এবং ব্যবহার করাও সহজ; ফলে শিশুর পুষ্টির জন্য অন্যতম ভালো বিকল্প। তবে যা-ই ব্যবহার করুন, কেনার আগে শিশুরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে ভুলবেন না।